,

নবীগঞ্জ-বাহুবল আসনে এমপি বাবু ও কেয়া বিদ্রোহী প্রার্থী

হবিগঞ্জের ৪টি আসনে ৩০ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল

মতিউর রহমান মুন্না/শাহ সুলতান আহমেদ :: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হবিগঞ্জ জেলার ৪টি সংসদীয় আসনে ৩০ জন প্রার্থী ৩১টি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। গতকাল বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত এসব প্রার্থীরা রিটার্নিং অফিসারের কাছে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে মহাজোটের মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে দুই এমপি বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ায় হবিগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য এড. আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ও বিগত নির্বাচনে মহাজোট থেকে বিনা প্রতিদ্ব›দ্বীতায় নির্বাচিত জাপার এমপি এম.এ মুনিম চৌধুরী বাবু স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করার জন্য মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। অপর দিকে, মহাজোটের পক্ষে আওয়ামীলীগ থেকে সাবেক মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজীর সুযোগ্য পুত্র গাজী শাহনেওয়াজ মিলাদ ও জাপার পক্ষে কেন্দ্রীয় কমিটির পার্লামেন্টারী বোর্ডের সদস্য আতিকুর রহমান আতিক দলীয় মনোনয়ন দাখিল করেছেন। ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে গনফোরাম থেকে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার সুযোগ্য পুত্র ড. রেজা কিবরিয়া ও সাবেক সংসদ সদস্য ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ সুজাত মিয়া মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। দুইজোটের ৪ প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করায় সবার মধ্যে আলোচনা চলছে কে হচ্ছেন মহাজোট ও ঐক্যফ্রন্টের মূল প্রার্থী। ইসলামী আন্দোলন বংলাদেশ এর পক্ষে মাওঃ আবু হানিফ আহমদ হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লন্ডন প্রবাসী অধ্যাপক আব্দুল হান্নান ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের এড. নুরুল হক মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। হবিগঞ্জ-১ নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে মোট ১০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৭ জন প্রার্থী সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকট ও ৩ জন রিটার্নিং অফিসার ও হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক এর নিকট মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

সূত্রে জানা গেছে, প্রার্থীর মধ্যে আলোচনায় কেন্দ্রবিন্দুতে মহাজোটের প্রার্থী সাবেক মন্ত্রী ফরিদ গাজীর তনয় আওয়ামীলীগ নেতা শাহনেওয়াজ মিলাদ গাজী, হবিগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য আওয়ামীলীগ নেত্রী এড. আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়া, কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক বর্তমান সংসদ সদস্য যুক্তরাজ্য প্রবাসী এম.এ মুনিম চৌধুরী বাবু, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আতিকুর রহমান আতিক ও সাবেক সংসদ সদস্য শেখ সুজাত মিয়া। ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্বাধীন গনফোরামের প্রার্থী সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা শাহ এএমএস কিবরিয়ার পুত্র অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া ও বিএনপির প্রার্থী হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলহাজ্ব শেখ সুজাত মিয়া। এদিকে এ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে শাহনেওয়াজ মিলাদ গাজী গত সোমবার সকালে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দলের সভাপতি শেখ হাসিনার স্বাক্ষরিত পত্রের মাধ্যমে চুড়ান্ত প্রার্থী হিসাবে চিঠি পেয়েছেন জাতীয় পার্টি থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জেলা সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক। আর বর্তমান সংসদ সদস্য এম.এ মুনিম চৌধুরী বাবুকে বাদ দিয়ে আতিকুর রহমান আতিককে জাতীয় পার্টির দলীয় মনোনয়ন দেয়ায় গত সোমবার নবীগঞ্জ শহরে ঝাড়– মিছিল করেছে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা। তবে শেষ মুহূর্তে কে হচ্ছেন মহাজোটের একক প্রার্থী এনিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে এখন নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

এদিকে, হবিগঞ্জ-২ (বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংসদ মো. আব্দুল মজিদ খান, বিএনপির ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন ও মো. জাকির হোসেন, জাতীয় পার্টির শংকর পাল, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের মনমোহন দেবনাথ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির পরেশ চন্দ্র দাশ ও ইসলামী আন্দোলনের এজে মাশউদ হাসান।

হবিগঞ্জ-৩ (সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) আসনে বর্তমান এমপি আওয়ামী লীগ দলীয় মো. আবু জাহির, বিএনপি দলীয় জি কে গউছ ও মো. এনামুল হক সেলিম, জাপার মো. আতিকুর রহমান আতিক, সিপিবির পিযুষ চক্রবর্তী, গণফোরামের চৌধুরী আশরাফুল বারী নোমান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আব্দুল কাদির ও ইসলামী আন্দোলনের মহিব উদ্দিন আহমেদ সোহেল মনোনয়নপত্র জমা দেন।

হবিগঞ্জ-৪ (চুনারুঘাট-মাধবপুর) আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংসদ মাহবুব আলী, বিএনপির সৈয়দ মো. ফয়ছল, ইসলামিক ফ্রন্টের মুফতি এমএ মুমিন, ইসলামী আন্দোলনের শেখ সামছুল আলম ও খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের। জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মাহমুদল কবীর মুরাদ জানান, প্রার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এ উৎসমুখর পরিবেশ সব সময় বজায় রাখতে আমরা সচেষ্ট থাকব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো খবর