,

ব্রিটেনে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা শংকিত সরকার

 রাজপথে লকডাউন ও ভ্যাকসিনাইজেশন বিরোধী ভিক্ষোভ

মতিয়ার চৌধুরী-লন্ডন : ব্রিটেনে আবারও বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, প্রতিদিনই গড়ে তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন, মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়াতে সাধারন মানুষ আতংকিত হয়ে পড়েছেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে সরকারও শংকিত। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন হুঁশিয়ারী দিয়ে বলেছেন ব্রিটেনে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ বা সেকেন্ড ওয়েবে পৌঁছে গেছে। এই সংক্রমণ এখন অনিবার্য। করোনা সংক্রমন থেকে বাঁচতে সরকার থেকে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হলেও, একটি গোষ্টী সরকারের নেয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে গতকাল রোববার সেন্ট্রল লন্ডনের ট্রাফলগার স্কয়ারে লকডাউন ও ভ্যাকসিনাইজেশ বিরোধী বিক্ষোভ করেছে। এদিকে বিজ্ঞানীরা সতর্ক করে বলছেন সমগ্র বিটেনে ব্যাপক হারে করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাচ্ছে, সময়মত এর বিস্তার প্রতিরোধ করা নাগেলে কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যু হতে পারে। ব্রিটেন সরকারের সায়েন্টিফিক এডভাইজারী গ্রুপ ফর ইমারজেন্সিজ (স্যজ) বলছে ‘আর’ নাম্বার ১.১ থেকে ১.৪ বৃদ্ধি পেয়েছে। ‘আর’ নাম্বার দিয়ে ওইসব মানুষের সংখ্যাকে বোঝানো হয়, এর অর্থ যারা আক্রান্ত একব্যক্তি থেকে করোনা অন্য ব্যক্তির কাছে স্থানান্তর হয়। এতে করে সংক্রমন দ্রুত গতিতে ঘটতে পারে। এতে অর্ধকোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসর বলেছেন তার সরকার সবকিছু পর্য্যালোচনার মধ্যে রাখবেন। তিনি বলেন আমরা ্ধসঢ়;এটা দ্বিতীয় দফার ঢেউ হিসেবে বিবেচনা করছি। শুধু ব্রিটেন নয় ইউরোপের কয়েকটি দেশেও এর ব্যাপকতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এদিকে গেল শুক্রবার ইংল্যান্ডের পাবলিক হ্যালথ (পিএইচই) ডাটা প্রকাশ করেছে। এতে সতর্ক করে বলা হয় আমরা আরো খারাপ লক্ষন ধেকতে পাচ্ছি। দ্বিতীয় দফা করোনায় ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে। এদিকে অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিকস (ওএনএস) বলছে আক্রান্তের সংখ্যা সপ্তাহের ভেতর দ্বিগুন হতে পারে। ইংল্যান্ডে এসংখ্যা দিনে ৬০০০ হাজার হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো খবর