,

মাধবপুরে চিকিৎসকের অবহেলায় চা বাগানে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

মাধবপুর প্রতিনিধি : মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া চা বাগানে চিকিৎসকের অবহেলায় কিষান বোনার্জী নামে পঞ্চম শ্রেনীর এক ছাত্র মারা গেছে। স্কুল ছাত্র মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নোয়াপাড়া চা বাগানে শ্রমিকরা এক দিনের কর্ম বিরতি করে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছে। চাবাগান সূত্রে জানা গেছে, নোয়াপাড়া চা বাগানের রিতু বোনার্জীর ছেলে কিষান বোনার্জী গত কয়েক দিন যাবদ কানের ব্যথায় ভুগছিলেন চিকিৎসার জন্য বাগান পরিচালিত হাসপাতালে নিয়ে গেলে বাগানের হাসপাতালের কমপাউন্ডার জাহাঙ্গীর আলম কিষান বোনার্জীকে কিছু ঔষধ দেয়। ঔষধ সেবনের পর তার অবস্থার আরো অবনতি ঘটে। শুক্রবার সকালে কিষানকে আবার বাগানের হাসপাতালে নেওয়া হলে কমপাউন্ডার জাহাঙ্গীর আলম কিষানকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে রেফার করে। হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক কিষানকে মৃত ঘোষনা করে। কিষানের মৃত্যু সংবাদ বাগানে ছড়িয়ে পড়লে ৫ মে শুক্রবার সকাল থেকে বাগানের শ্রমিকরা কমপাউন্ডার জাহাঙ্গীর আলমকে দায়ি করে কাজে যোগ না দিয়ে কর্ম বিরতি পালন করে। বাগানের নারী শ্রমিক সুকন্তলা গোয়ালা জানান, নোয়াপাড়া চা বাগানে হাসপাতালে কোন এমবিবিএস ডাক্তার নেই। নিয়ম অনুযায়ী চাব-াগানে একজন ডাক্তার থাকার কথা। কিন্তু বাগানে এমবিবিএস ডাক্তারের পরিবর্তে কমপাউন্ডার জাহাঙ্গীর আলম রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে থাকেন। তার ভুল চিকিৎসার কারনে কিষান বোনার্জীর মৃত্যু হয়েছে। চা বাগানের উপ ডেপুটি ম্যানাজার সোহাগ মাহাম্মুদ বলেন, স্কুল ছাত্রের মৃতুকে কেন্দ্র করে যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল পরে গত শুক্রবার রাতে স্থানীয় চেয়ারম্যান, শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এবং বাগানের ব্যবস্থাপক মিলে মিমাংসা করা হয়েছে। নিহতের পরিবারকে ৬৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে এবং বাগান থেকে তার পরিবারকে শ্রমিকের একটি স্থায়ী কাজ দেওয়া হবে।

     এই বিভাগের আরো খবর