,

লিচুর পুষ্টিগুণ

সময় ডেস্ক : গ্রীষ্মের ফলের মধ্যে লিচু অন্যতম। মিষ্টি, রসালো স্বাদের ফলটি শিশু থেকে বয়স্ক সবারই পছন্দের। স্বাদের পাশাপাশি এই ফলটি গুণেও অনন্য। লিচুতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট ফ্ল্যাভোনয়েড রয়েছে। এই ফল খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়-
১. লিচু রক্ত উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টির একটি সমৃদ্ধ উৎস। এটি শরীরে ম্যাঙ্গানিজ, ম্যাগনেসিয়াম, কপার, আয়রন এবং ফোলেট সরবরাহ করে যা রক্তের লোহিতকণিকা গঠনের জন্য প্রয়োজনীয়।
২. লিচুতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার এবং ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স থাকে যা বিপাকে সহায়তা করে।
৩. লিচুতে উচ্চ পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় এটি বার্ধক্য প্রতিরোধে কার্যকর।
৪. লিচুতে পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাসিয়াম রয়েছে, যা রক্তে সোডিয়ামের মাত্রা বজায় রাখতে প্রয়োজন।
৫. লিচুতে থাকা পটাসিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ফলে স্ট্রোক এবং হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে। এছাড়াও এতে থাকা ম্যাঙ্গানিজ, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, কপার এবং ফোলেটের মতো খনিজ উপাদান রক্তচাপ কমাতে ভূমিকা রাখে। তবে পুষ্টিবিদের মতে, শুধু ডায়াবেটিস রোগীই নয়, একজন সুস্থ মানুষেরও বেশি লিচু খাওয়া উচিত নয়। এছাড়াও খাওয়ার পর ও ঘুমানোর আগে ফল খাওয়া উচিত নয়। কারণ, এতে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যেতে পারে।

     এই বিভাগের আরো খবর