,

বাহুবলে আপন খালু কর্তৃক ধর্ষণের শিকার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

ধর্ষক আব্দুর রউফ আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি : বাহুবলে আপন খালু কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৭ম শ্রেণী পড়ুয়া এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে আব্দুর রউফ(৪৫) কে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামে।
পারিবারিক ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বাহুবল উপজেলার ২নং পুটিজুরী ইউনিয়নের মীরেরপাড়া এলাকার বাসিন্দারা জনক দিনমজুরের কন্যাকে তার মা মারা যাওয়ার পর উপজেলার ছোট বড়ইউড়ি মহিলা মাদ্রাসায় লেখাপড়ার জন্য ভর্তি করেন। শিক্ষার্থীর দিনমজুর বাবার পারিবারিক সমস্যার কারণে বড়ইউড়ি গ্রামের মৃত আব্দুল ছাত্তার মিয়ার ছেলে শিক্ষার্থীর আপন কালু আব্দুর রউফ মিয়ার বাড়িতে থাকার ব্যবস্থা করে দেন তিনি। কিন্তু বাবা কি জানতো মেয়ের ভাগ্যের নির্মম পরিহাস এমন হবে।
আপন খালু আব্দুর রউফ তার আপন শালিকার মেয়ে ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে নিজ ঘরে জোরপূর্বক একাধিক বার ধর্ষণ করে, পরবর্তীতে ঐ শিক্ষার্থীকে গৃহ বন্দী করে রাখে লম্পট। এক পর্যায়ে জনক শিক্ষার্থী ও তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ বিছিন্ন করে দেয় খালু আব্দুর রউফ। এ অবস্থায় সে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। যতই দিন গড়াচ্ছিল ততই শিক্ষার্থীর অবস্থা খারাপের দিকে যাচ্ছিলো। গত সপ্তাহ খানেক আগে ঐ মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর বাবা ও আত্মীয় স্বজনরা অন্তঃসত্ত্বার খবর পায়। মেয়ের এমন জঘন্যতম ঘটনার খবর পেয়ে দিনমজুর ও অসহায় পিতা বিষয়টি নিরবে তার অন্যান্য আত্মীয় স্বজনের কাছে গিয়ে মিমাংসার চেষ্টা চালান, কিন্ত প্রভাবশালী আব্দুর রউফ দিনমজুর ব্যক্তিকে কোন পাত্তাই দিচ্ছেনা। অবশেষে অসহায় পিতা নিরুপায় হয়ে ২নং পুটিজুরী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ মুদ্দত আলী ও ওয়ার্ড মেম্বারের দারস্থ হয়ে বাহুবল মডেল থানা পুলিশকে বিষয়টি জানান।
এ ঘটনার খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানার এস আই সমীরণ চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মঙ্গলবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে লম্পট খালু আব্দুর রউফকে আটক করতে সক্ষম হয়। এ ঘটনায় বাহুবলের সর্বত্র সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে, লম্পট খালু আব্দুর রউফের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন সচেতনমহল।
এ ব্যাপারে এস আই সমীরণ চন্দ্র দাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অভিযুক্ত আব্দুর রউফকে আটক করা হয়েছে মামলার প্রস্তুতি চলছে, রাতেই মামলা রেকর্ড করা হবে।

     এই বিভাগের আরো খবর